মামলায় পড়লে কি করবেন

মামলায় পড়লে কি করবেন, জানা জরুরি।

 

আমাদের দেশের সাধারণ মানুষের আইন সম্পর্কে অজ্ঞানতার কারণে পুলিশি ঝামেলাকে অনেক ভয় পায়।মামলায় পড়লে কি করবেন তা অজানা থাকা আইনের বিষয়ে স্পষ্ট জ্ঞান না থাকা এর অন্যতম কারণ। তাই কোন কারণে পুলিশি ঝামেলা বা মামলায় পড়লে আমরা খুবই আতঙ্কিত হয়ে পড়ি। আমাদের মনে রাখতে হবে যে কোন মানুষ মামলা বা অভিযোগ করতে পারেন, বিধায় নিরপরাধ ব্যাক্তিও অভিযুক্ত হতে পারে। তাই মামলায় পড়লে আমাদের কি করতে হবে সে বিষয়ে স্পষ্ট ধারণা থাকা প্রয়োজন।মামলায় পড়লে কি করবেন, কোন বিষয়গুলো জানা জরুরি তার বিস্তারিত আলোচনা করব আশা করি নতুন কিছু জানতে পারবেন।

মামলায় পড়লে কি করবেনঃ

০১। প্রথমেই থানা অথবা কোর্ট হতে মামলার নকল তোলার চেষ্টা করতে হবে।(যাহাতে আপনার বিরুদ্ধে কি ধরনের অভিযোগ তুলা হয়েছে তার বিস্তারিত তথ্য জানতে পারেন)
০২। গ্রেফতার হলে বা হবার আশংকা থাকলে কোন ক্রমেই আতঙ্কগ্রত হয়ে পড়বেন না।
০৩। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী গ্রেফতার করতে এলে তাদের কাছ থেকে গ্রেফতারের কারণ জেনে নিতে পারেন।
০৪। সব সময় মনে রাখতে হবে মামলা হলেই আপনি অপরাধী নয়। শুধুমাত্র বিচারে দোষী প্রমানিত হলে আপনি অপরাধী।
০৫। আদালতে আপনার পক্ষে মামলা পরিচালনার জন্য আইনজীবী নিয়োগ করতে হবে।
০৬। মামলায় গ্রেফতার হলে আদালতে রায় প্রদানের আগ পর্যন্ত আপনি যে কোন সময় জামিনের আবেদন করতে পারবেন।
০৭। অর্থনৈতিক সমস্যা থাকলে বিনামূল্যে আইনি সহযোগিতার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

মামলায় নিজেকে নির্দোষ প্রমানের জন্য যে সকল স্বাক্ষ্য আদালতে উপস্থাপন করতে হবেঃ

মামলা হলে তা পুলিশ অফিসার কমপক্ষে ১৫ কার্যদিবস হইতে উর্ধে ৯০ দিন পর্যন্ত তদন্ত করবে। স্বাক্ষ্য প্রমাণ তদন্তে আপনি দোষী না হলে পুলিশ অফিসার আপনার নামে চুড়ান্ত রিপোর্ট (নিরপরাধ গণ্য করে প্রতিবেদন) কিংবা স্বাক্ষ্য প্রমাণে অপরাধী প্রমাণিত হলে  আপনাকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করবে। পুলিশ অফিসারের রিপোর্টের প্রেক্ষিতে আদালতে বিচার কার্যক্রম শুরু হবে। আপনি যদি কোন মামলায় অভিযুক্ত হয়ে পড়েন তাহলে আপনি নিজেকে নিরপরাধী প্রমাণের জন্য যে কোন দালিলিক সাক্ষ্য যেমন-বিভিন্ন দলিল, সিসি টিভি ফুটেজ, ফটো, আদালতে  উপস্থাপন করতে পারেন।যা আদালতের নিকট খুবই গ্রহণযোগ্য। তাছাড়া নিজেকে নিরপরাধী প্রমানের জন্য নিজের পক্ষে সাফাই সাক্ষী আদালতে উপস্থাপন ঘটনার দিন তারিখে আপনি অন্যত্র উপস্থাপন করে থাকলে তার প্রমাণ আদালতে দিতে পারেন।


Comment As:

Comment (0)