বিশ্বের জনবহুল ০৫ টি দেশ, বসবাস করে ৪০০ কোটি মানুষ।

পৃথিবীতে প্রায় ৮০০ কোটি মানুষ বসবাস করে। ১৯৫ টি দেশ অঞ্চলে এসব মানুষ রয়েছে। পৃথিবীর সবচেয়ে জনবহুল দেশ ছিল চীন। কিন্তু বর্তমানে জাতিসংঘের হিসাব মতে বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল দেশ ভারত। তাছাড়া জনসংখ্যার দিক দিয়ে বিশ্বের আরো ০৪ টি জনবহুল দেশগুলো হল যথাক্রমে চীন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইন্দোনেশিয়া ব্রাজিল আজকের পোস্টে বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল ০৫ টি দেশ, বসবাস করে ৪০০ কোটি মানুষ সে সম্পর্কে আলোচনা করব।

০১। ভারতঃ

ভারত বিশ্বের সবচাইতে জনবহুল দেশ। এর জনসংখ্যা প্রায় ,৪৩,৩৭,৮৩,৬৮৬ (একশ তেতাল্লিশ কোটি সাইত্রিশ লক্ষ তিরাশি হাজার ছয়শত ছিয়াশি) জন। ভারত ৩২,৮৭,২৬৩ কিলোমিটারের একটি দেশ। এটি ২৮ টি রাজ্য ০৮ কেন্দ্র শাসিত রাজ্যে বিভক্ত। ভারত একটি গণতান্ত্রিক দেশ এবং এর রাজধানী নয়াদিল্লি। এদেশের জনসংখ্যার বাড়ার হার খুবই বেশি। এই বিপুল সংখ্যক জনগোষ্ঠীকে কাজে লাগিয়ে ভারত বিশ্বে মাথা উচু করে দাড়াচ্ছে। সামরিক দিক দিয়ে আমেরিকা, রাশিয়া, চীনের পরই ভারতের অবস্থান। ভারত একটি ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্র। দেশটির জনসংখ্যার ৭৯.% হিন্দু, ১৪.% ইসলাম, .% খ্রিস্টধর্ম,.% শিখ, . % জৈন,.২৩% ধর্মহীন,.৬৫% অন্যন্য ধর্মাবলম্বী।

০২। চীনঃ

বর্তমানে বিশ্বের দ্বিতীয় জনবহুল দেশ চীন এবং আয়তনে তৃতীয় /চতুর্থ। দেশটির জনসংখ্যা প্রায় ,৪১,৫৬,২২,৩২০ ( একশত একচল্লিশ কোটি ছাপ্পান্ন লক্ষ বাইশ হাজার তিনশত বিশ ) জন। চীনের আয়তন ৯৫,৯৬,৯৬১ বর্গকিলোমিটার। তাইওয়ান ব্যাতীত চীনের ২২ টি প্রদেশ রয়েছে। চীনের রাজধানী বেইজিং বৃহত্তম শহর সাংহাই। দেশটির রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং প্রধানমন্ত্রী লি কিয়াং। দেশটিতে ৭৪.% ধর্মহীন, ১৮.% বৌদ্ধধর্ম, .% খ্রিষ্টধর্ম, .% ইসলাম, .% অন্যন্য ধর্মাবলম্বী লোকের বসবাস। গ্লোবাল পাওয়ার এর তথ্য অনুসারে চীন সামরিক শক্তিশালী দেশ হিসেবে বিশ্বে তৃতীয়। তবে বিশেষজ্ঞদের ধারণা যে ভাবে চীন এগিয়ে যাচ্ছে তাতে সামরিক দিক থেকে নম্বর শক্তিশালী দেশ হয়ে অচিরেই আত্মপ্রকাশ করবে।

০৩। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রঃ

ভারত চীনের সঙ্গে জনসংখ্যার বিশাল পার্থক্য থাকা সত্ত্বেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বে ০৩য় জনবহুল দেশ। ৯৮,৩৩,৫১৬ বর্গকিলোমিটার দেশটিতে জনসংখ্যা প্রায় ৩৩,১৪,৪৯,২৮১ (তেত্রিশ কোটি চৌদ্দ লক্ষ উনপঞ্চাশ হাজার দুইশত একুশ কোটি) জন। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী দেশ। দেশটির রাজধানী ওয়াশিংটন বৃহত্তম নগরী নিউইয়র্ক। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন উপরাষ্ট্রপতি কমলা হ্যারিস। দেশটির জনসংখ্যার ৭০.% খ্রিস্টান, ২২.% অসম্পৃক্ত, .% ইহুদি, .% ইসলাম,.% বৌদ্ধ, .% হিন্দুধর্ম অনুসরণ করে।

০৪। ইন্দোনেশিয়াঃ

ইন্দোনেশিয়া দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার একটি দ্বীপ রাষ্ট্র। বিশ্বের চতুর্থ জনবহুল দেশ পৃথিবীর বৃহত্তম মুসলিম রাষ্ট্র। ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তা রাষ্ট্রপতি জোকো উইদোদো।দেশটির আনুমানিক জনসংখ্যা প্রায় ২৬,১১,১৫,৪৫৬ (ছাব্বিশ কোটি এগার লক্ষ পনের হাজার চারশত ছাপ্পান্ন) জন। ইন্দোনেশিয়ার আয়তন ১৯,০৪,৫৬৯ কি.মি এবং মোট আয়তনের .৮৫% পানি। দেশটিতে ৮৬.৭০% ইসলাম, ১০.৭২% খ্রিস্টান, .৭৪ %হিন্দু, .৭৭% বৌদ্ধ, .০৭ % অন্যন্য ধর্মাবলম্বী বসবাস করে।

০৫। ব্রাজিলঃ

ফুটবলে জনপ্রিয়তার কারনে ব্রাজিল নামক দেশটি সবার নিকট পরিচিত। তাছাড়া পৃথিবীর ফুসফুস খ্যাত আমাজন জঙ্গলের বেশিরভাগ ব্রাজিলে অবস্থিত। জনসংখ্যা আয়তনের দিক দিয়ে ব্রাজিল বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম দেশ। দেশটির জনসংখ্যা প্রায় ২১,১০,৪৯,৫২৭ (একুশ কোটি দশ লক্ষ উনপঞ্চাশ হাজার পাঁচশত সাতাশ) জন এবং আয়তন ৮৫,১৫,৭৬৭ কিমি। ব্রাজিলের রাজধানী ব্রাসিলিয়া এবং বৃহত্তম নগরী সাও পাওলো। দেশটির জনসংখ্যার ৪৭.৪৩% শ্বেতাঙ্গ , ৪৩.৮০% বাদামী (মিশ্র), .৪৮% কৃষ্ণাঙ্গ ,.৫৮% এশীয় (হিন্দু ধর্ম .৪০% এবং ইসলাম ধর্ম .১৮%) .২৮ আমেরিন্ডিয়ান ধর্মাবলম্বী।


Comment As:

Comment (0)