কিভাবে জামিন নিবেন, জামিনের পদ্ধতি।

 

জামিনঃ

আইনানুগ ভাবে কিছু নির্দিষ্ট শর্ত অনুযায়ী সাময়িক মুক্তি প্রদানকে জামিন বা bail বলে। কিভাবে জামিন নিবেন, জামিনের পদ্ধতি বিস্তারিত জানার আগে জানা প্রয়োজন, আমলের অযোগ্য (ছোট আপরাধ), শিশু অথবা নারীর ক্ষেত্রে থানা থেকে জামিন দেওয়ার বিধান রয়েছে। তবে বেশিরভাগ সময়ই আইনি জটিলতা এড়ানোর জন্য থানা থেকে জামিন দেওয়া হয় না। তাই সাধারণত সকল আসামীকে আদালত থেকে জামিন নেওয়ার জন্য আবেদন করতে হয়। আজকে আমরা কিভাবে জামিন নেবেন, জামিনর পদ্ধতি বিস্তারিত এই পোস্টে আলোচনা করার চেষ্টা করব। আশা করি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানতে পারবেন।

কিভাবে জামিন নেবেনঃ

কোন ধরনের মামলা অথবা অভিযোগ আসলে আমরা প্রথমেই আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়ি তা ঠিক নয়। কোন ব্যাক্তিকে পুলিশ গ্রেফতার করলে সে প্রকৃতপক্ষে অপরাধী এমনটা নয়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে নিরপরাধ ব্যাক্তিও আইনি জটিলতার সম্মুখিন হয়ে গ্রেফতারের শিকার হয়। আইনজীবির মাধ্যমে কোন অভিযুক্ত আদালতে বিচারকের কাছে জামিনের জন্য আবেদন করে থাকে। কোন অপরাধের অভিযুক্ত ব্যাক্তি রায় প্রদানের আগ মুহুর্ত পর্যন্ত জামিনের জন্য আবেদন করতে পারে আদালত প্রয়োজন বোধে যে কোন সময় অপরাধীকে জামিন দিতে পারেন।

আদালত যে সকল শর্তে আসামীর জামিন মঞ্জুর করেনঃ

০১। অভিযুক্ত ব্যাক্তি নির্দিষ্ট দিন তারিখে আদালতে হাজির হবেন।
০২। অ়ভিযুক্ত ব্যাক্তির স্থায়ী ঠিকানা থাকতে হবে।
০৩। জামিনে মুক্তি পেয়ে বাদী কিংবা স্বাক্ষীকে ভয়ভীতি দেখাবে না।
০৪। অভিযুক্ত ব্যাক্তির পর্যাপ্ত জামিনদার থাকতে হবে- (মা,বাবা, গণ্যমান্য ব্যাক্তি, অথবা আইনজীবীও জামিনদার হতে পারে)
০৫। জামিনে মুক্তি পেয়ে মামলার তদন্তকার্যে বাধা সৃষ্টি করবে না।

সহজে কারা জামিন পাবেনঃ

কোন নারী অথবা শিশু (১৮ বছরের নিচে), অতিবৃদ্ধ, কোন গুরুতর অসুস্থ কোন ব্যাক্তি,আমলের অযোগ্য অপরাধে অপরাধী কোন ব্যাক্তি, অথবা যদি আদালতকে অভিযুক্ত ব্যাক্তি বুঝাতে সক্ষম হন যে অপরাধের জন্য তাহাকে গ্রেফতার  করা হয়েছে প্রকৃতপক্ষে সে অপরাধে অপরাধী নয় তাছাড়া যদি কোন ব্যাক্তি অপরাধের ঘটনার সাথে জড়িত নয় মর্মে কোন দালিলিক প্রমাণপত্র দেখাতে পারে তারা সহজে জামিন পাবেন।

জামিন কি বাতিল হতে পারেঃ

কোন অভিযুক্ত ব্যাক্তি অথবা আসামী জামিনে মুক্তি পেয়ে যে সকল শর্তে জামিন দেওয়া হয়েছিল তার যে কোন একটি ভঙ্গ করলে বাদী অথবা তার পক্ষের কোন লোকের আবেদনের প্রেক্ষিতে যে কোন সময় আদালত জামিন বাতিল করতে পারেন। সেক্ষেত্রে আদালত অভিযুক্ত ব্যাক্তির নামে গ্রেফতারী পরোয়ানা ইস্যু করে গ্রেফতার করে পুনরায় জেল হাজতে পাঠাতে পারেন।


Comment As:

Comment (0)