সাধারণ আনসার ভিডিপি নিয়োগ যোগ্যতা, ট্রেনিং ও বেতনভাতা বিস্তারিত।

দেশের শান্তি শৃঙ্খলা নিরাপত্তায় আনসার ভিডিপি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। আনসার ভিডিপি একটি স্বনামধন্য বাহিনী। নিয়োগ প্রাপ্ত আনসার ভিডিপির সদস্যরা দেশের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

আমাদের দেশে ব্যাটালিয়ন আনসার সাধারণ আনসার নামে দুইটি শাখা রয়েছে। প্রতিটি শাখার আলাদা নিয়ম কানুন রয়েছে। আজকে আমরা সাধারণ আনসার ভিডিপি বাহিনী সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।

সাধারণ আনসার বাহিনীতে যোগদানের জন্য নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। এজন্য পত্রিকায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির  প্রতি লক্ষ্য রাখতে হবে। তাছাড়া সাধারণ আনসার ভিডিপি বাহিনীতে যোগদানের জন্য উপজেলা বা জেলা আনসার ভিডিপি অফিসে যোগাযোগ করলে নিয়োগ সম্পর্কে তথ্য পাওয়া যাবে।

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত নিয়ম অনুসরণ করে আবেদন করতে হবে। পরবর্তীতে নির্ধারিত ,তারিখ সময়ে বাছাই কমিটি কর্তৃক প্রার্থী বাছাই করা হয়।

আনসার ভিডিপি  নিয়োগ যোগ্যতা, ট্রেনিং বেতনভাতাঃ

শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ নূন্যতম jsc পাশ বা সমমান পাশ হতে হবে।

উচ্চতাঃ সর্বনিম্ন ফুট ইঞ্চি, তবে অধিকতর উচ্চতা সুস্বাস্থ্যের অধিকারীদের অগ্রাধিকার।

বয়সঃ নূন্যতম বয়স ১৮ বছর সর্বোচ্চ বয়স ৩০ বছর।

বুকের মাপঃ ৩০/৩২ ইঞ্চি।

দৃষ্টিঃ /

প্রশিক্ষণঃ ০৩ মাস মেয়াদি।

ট্রেনিং সেন্টারঃ আনসার ভিডিপি একাডেমী, সফিপুর, গাজীপুর।

বেতনঃ প্রশিক্ষণ শেষে অঙ্গীভূত হলে সমতল এলাকার জন্য ১৬,২০০ এবং পার্বত্য এলাকার জন্য ১৭,৪০০ /- ভাতা প্রাপ্য হবেন। তাছাড়া ,৭৫০ /- হারে প্রতি বছর দুইটি উৎসব ভাতা প্রদান করা হয়।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্রঃ

০১। শিক্ষাগত যোগ্যতার মূল সনদপত্র।

০২। জাতীয় পরিচয়পত্রের মূল কপি।

০৩। চেয়ারম্যান বা কমিশনার কর্তৃক প্রদত্ত চারিত্রিক সনদপত্র।

০৪। নাগরিকত্ব সনদপত্রের মূল কপি।

০৫। অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশনের কনফারমেশন ডকুমেন্ট (প্রবেশপত্র) মূলকপি।

০৬। - নং ক্রমিকে উল্লেখিত সকল ডকুমেন্টের গেজেটেড অফিসার কর্তৃক সত্যায়িত ফটোকপি।

০৭। গেজেটেড অফিসার কর্তৃক সত্যায়িত পাসপোর্ট সাইজের ০৪ কপি রঙ্গিন ছবি।

দায়িত্বঃ ০৩ মাস মেয়াদি প্রশিক্ষণ শেষে অঙ্গীভূত হয়ে সরকারি বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্বাপনা, বিমানবন্দর, সমুদ্রবন্দর, পাওয়ার স্টেশন, শিল্প, বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, কলকারখানা, মহানগরীর ট্রাফিক কন্ট্রোল, রেলস্টেশনের নিরাপত্তা প্রদান করা।

বিঃদ্রঃ-কোন দুরারোগ্য ব্যধি বা শরীরে বড় ধরনের অপারেশন থাকলে সাধারণত প্রার্থী নির্বাচন করা হয় না। তবে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারউপজেলা-জেলা পর্যায়ে ভালো খেলোয়াড়, কারিগরি প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের  অগ্রাধিকার দেওয়া হয়। তবে সাধারণ আনসার কোন সরকারি চাকরি বা স্থায়ী চাকরি নয়। এটি চুক্তিভিত্তিক ০৩ বছরের জন্য নিয়োগ করা হয়। মেয়াদ শেষে পুনরায় ০৩ বছরের চুক্তি করা হয় এভাবে চলমান থাকে। তবে সাধারণ আনসার হিসেবে নিয়োগ পেতে অবশ্যই ০৩ মাস মেয়াদি প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করতে হবে।


Comment As:

Comment (0)