চুরির শাস্তি কি? গৃহ হইতে চুরি করলে কত দিনের জেল হয়।

 

চুরি কাকে বলেঃ

আমাদের দেশে বিভিন্ন ধরনের চুরির ঘটনা অহরহ ঘটছে। অভ্যাসগত পেশাদার দুই ধরনের চুরির শাস্তি আইনে রয়েছে। চুরির শাস্তি কি? গৃহ হইতে চুরি করলে কত দিনের জেল হয় তা জানার আগে চুরি কাকে বলে আলোচনা করা প্রয়োজন।আইনের ভাষায় যদি কোন ব্যাক্তি অপর কোন ব্যাক্তির দখল হইতে উক্ত ব্যাক্তির সম্মতি ব্যতিরেকে কোন অস্থাবর সম্পত্তি অসৎ উদ্দেশ্য এক স্থান হইতে অন্য স্থানান্তর করে তখন থাকে চুরি বলে। চুরি করার ক্ষেত্রে নিম্নলিখিত ০৫ টি কারণ থাকতে হবে।

০১। ব্যাক্তির সম্মতি ব্যাতিরেকে।
০২। অস্থাবর সম্পত্তি হতে হবে।
০৩। অসৎ উদ্দেশ্য থাকতে হবে।
০৪। অসাধুভাবে স্থানান্তর করতে হবে।
০৫। কোন ব্যাক্তির দখল হইতে হতে হবে।             (দন্ডবিধি আইন ৩৭৮ ধারা)

চুরির বিভিন্ন ধরনের প্রকারভেদ রয়েছে। যেমন চুরির শাস্তি, গৃহ হইতে চুরির শাস্তি, চাকর কর্তৃক চুরির শাস্তি, আঘাতের প্রস্তুতি নিয়ে চুরির শাস্তি ইত্যাদি। চুরির ভিন্নতা অনুযায়ী শাস্তির বিষয়ে আইনে ভিন্নতা রয়েছে। নিম্নে চুরির শাস্তি কি? গৃহ হইতে চুরি করলে কত দিনের জেল হয় প্রভৃতি বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

চুরির শাস্তি কিঃ

যদি কোন ব্যাক্তি চুরি করে তাহলে উক্ত ব্যাক্তি ০৩ বছর পর্যন্ত যে কোন মেয়াদের সশ্রম অথবা বিনাশ্রম মেয়াদের কারাদন্ড তদুপরি অর্থ দন্ডে দন্ডিত হবেন।(দন্ডবিধি আইন ৩৭৯ ধারা)

গৃহ হইতে চুরির শাস্তিঃ

যদি কোন ব্যাক্তি অপর কোন ব্যক্তির বসতগৃহ হইতে চুরি করে তাহলে উক্ত ব্যাক্তি ০৭ বছর পর্যন্ত যে কোন মেয়াদের সশ্রম অথবা বিনাশ্রম মেয়াদের কারাদন্ড তদুপরি অর্থ দন্ডে দন্ডিত হবেন।(দন্ডবিধি আইন ৩৮০ ধারা)

চাকর কর্তৃক চুরির শাস্তিঃ

যদি কোন চাকর বা ভূত্য মালিকের সম্পত্তি চুরি করে তাহলে উক্ত ব্যাক্তি ০৭ বছর পর্যন্ত যে কোন মেয়াদের সশ্রম অথবা বিনাশ্রম মেয়াদের কারাদন্ড তদুপরি অর্থ দন্ডে দন্ডিত হবেন। (দন্ডবিধি আইন ৩৮১ ধারা)

আঘাতের প্রস্তুতি নিয়ে চুরির শাস্তিঃ

যদি কোন ব্যাক্তি চুরি করার আগে, চুরি করার সময় অথবা চুরি করে পালানোর সময মারাত্মক আঘাত বা আক্রমণের প্রস্তুতি সহকারে চুরি করে তাহলে তাহলে উক্ত ব্যাক্তি ১০ বছর পর্যন্ত যে কোন মেয়াদের সশ্রম অথবা বিনাশ্রম মেয়াদের কারাদন্ড তদুপরি অর্থ দন্ডে দন্ডিত হবেন। (দন্ডবিধি আইন ৩৮২ ধারা)

পরিহিত বা বাহিত সম্পত্তি চুরির শাস্তিঃ

যদি কোন ব্যাক্তি অন্য কোন ব্যাক্তির পরিহিত বা বাহিত সম্পত্তি চুরি করিবার উদ্যেগ করিয়া উক্ত ব্যাক্তিকে আক্রমণ করে বা বলপ্রয়োগ করে তাহলে উক্ত ব্যাক্তি ০২ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড বা জরিমানা দন্ড বা উভয় দন্ড পর্যন্ত হতে পারে। (উদাহারন- রাস্তাঘাটে মানুষের শরীর হইতে চুরির শাস্তি) ( দন্ডবিধি আইন ৩৫৬ ধারা)

শিশুর দেহাবরণ হইতে চুরির শাস্তিঃ

যদি কোন ব্যাক্তিন ১০ বছরের কোন শিশু দেহাবরণ হইতে অস্থাবর সম্পত্তি অসাধুভাবে চুরি করার উদ্দেশ্য শিশুকে অপহরণ বা  প্রতারণাপূর্বক হরন করে তাহলে উক্ত ব্যাক্তি ০৭ বছর পর্যন্ত যে কোন মেয়াদের সশ্রম অথবা বিনাশ্রম মেয়াদের কারাদন্ড তদুপরি অর্থ দন্ডে দন্ডিত হবেন। (দন্ডবিধি আইন ৩৬৯ ধারা)

কোন ব্যাক্তি কর্তৃক বদ্ধপাত্র ভাঙ্গিয়া চুরির শাস্তিঃ

যদি কোন ব্যাক্তি কোন বদ্ধপাত্র বা যে বদ্ধপাত্রে সম্পত্তি আছে বিশ্বাস করে তা ভাঙ্গিয়া চুরি করে তাহলে উক্ত ব্যাক্তির ০২ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড বা জরিমানাদন্ড বা উভয় দন্ড পর্যন্ত হতে পারে। (উদাহারন-কোন ব্যাক্তি কর্তৃক ক্যাশবাক্স ভাঙ্গিয়া চুরির শাস্তি) ( দন্ডবিধি আইন ৪৬১ ধারা)

হেফাজতের ভারপ্রাপ্ত ব্যাক্তি কর্তৃক বদ্ধপাত্র ভাঙ্গিয়া চুরির শাস্তিঃ

যদি কোন ব্যাক্তি কোন বদ্ধপাত্র বা যে বদ্ধপাত্রে সম্পত্তি আছে বলে তাহার বিশ্বাস করিয়া বদ্ধপাত্র হেফাজতের দায়িত্ব থাকিয়া অনিষ্টের জন্য ভাঙ্গিয়া উন্মুক্ত করে তাহলে উক্ত ব্যাক্তির ০৩ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড বা জরিমানাদন্ড বা উভয় দন্ড পর্যন্ত হতে পারে। (উদাহারন-দোকানের কর্মচারী কর্তৃক ক্যাশবাক্স ভাঙ্গিয়া চুরির শাস্তি) ( দন্ডবিধি আইন ৪৬২ ধারা)


Comment As:

Comment (0)