খেলাধূলারসময়

খেলাধূলার সময় আহত বা মৃত্যু হলেও কারো অপরাধ হয় না কেন?

 

ফুটবল, ক্রিকেট, হ্যান্ডবল, বলিবল কিংবা কাবাডী সহ বিভিন্ন ধরনের খেলায় আমরা অংশগ্রহণ করি। শরীর মন ভালো রাখতে হলে খেলাধূলার বিকল্প নেই। নিয়মিত খেলাধুলা শরীর মনের জন্য খুবই উপকারী। খেলাধুলার মাধ্যমে পারস্পরিক শান্তি সৌহার্দ্য বজায় থাকে। কিন্তু মাঝে মধ্যে খেলাধুলায় অনাকাঙ্খিত দুর্ঘটনা ঘটে থাকে। খেলাধুলার সময় কেউ কেউ আহত হয়। মাঝে মধ্যে মৃত্যুর মত ভয়াবহ দুর্ঘটনাও ঘটে। কিন্তু এতে কারো কোন অভিযোগ থাকে না বা কেউ অভিযোগ করে না। আজকের পোস্টে খেলাধূলার সময় আহত বা মৃত্যু হলেও কারো অপরাধ হয় না কেন তা বিস্তারিত আলোচনা করব।

খেলাধূলার সময় কাউকে আঘাত করে আহত মত ঘটনা সাধারণত অজ্ঞানতাবশত ঘটে। তাই কেউ অভিযোগ করে না। এটি আমরা সবাই জানি। কিন্তু কেউ যদি খেলাধূলার সময় আহত বা মৃত্যুবরণ করার জন্য অভিযোগ করে তাহলে কি হবে? যার দ্বারা আঘাত করা হয়েছে সে কি অপরাধী হবে। উত্তরটি হলো না খেলাধূলার সময় কেউ আহত হলে মৃত্যুবরণ করলে কেউ অপরাধী হবে না। বাংলাদেশে প্রযোজ্য দন্ডবিধি আইনে এর একটি আইনগত ভিত্তিও রয়েছে।

দন্ডবিধি আইনের ৮৭ ধারায় বলা হয়েছে যদি এমন কোন কার্য যাহাতে মৃত্যু বা গুরুতর আঘাতের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা নাই তা যদি উভয়ের সম্মতিক্রমে করা হয় তাহাতে কেউ মৃত্যু বা গুরুতর আঘাতে আহত হলেও অপরাধ হবে না।

দন্ডবিধি আইনের ৮৭ ধারা মোতাবেক খেলাধুলার সময় অনিচ্ছাকৃত দুর্ঘটনা ঘটলেও তা অপরাধ হবে না। তবে কেউ যদি দুরভিসন্ধিমূলক কাউকে আহত বা মৃত্যু ঘটানোর জন্য খেলাধুলার সময় আক্রমণ করে তবে তার বিরুদ্ধে খুনের মামলা বা অপরাধমূলক নরহত্যার মামলা করা যাবে। আদালতে উক্ত ঘটনা প্রমাণ করা গেলে অপরাধীর শাস্তি হবে।


Comment As:

Comment (0)